২৯তম জাতীয় সম্মেলন: কেমন নেতা চান কর্মীরা?

প্রকাশিত: ০৭-০৪-২০১৮, সময়: ০৪:০৯ |
Share This

আগামী ১১ এবং ১২ মে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে পদপ্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেড়েছে প্রচারণা। আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতাদের কাছেও বেড়েছে প্রার্থীদের আনাগোনা। যে যার মত করে আগানোর চেষ্টা করছেন।

কিন্তু ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতৃত্বে কেমন নেতা দেখতে চান সংগঠনের প্রাণভোমরা মাঠের তৃণমূল কর্মীরা? সময় ট্রিবিউনের পক্ষ থেকে এরকম প্রশ্ন করা হয়েছিল বিভিন্ন হল ইউনিটের তৃণমূল সক্রিয় কর্মীদের।

সকলের মুখে একটিই কথা- পারিবারিকভাবে রাজনৈতিক ঐতিহ্য আছে এমন ক্লিন ইমেজ, শিক্ষার্থী ও কর্মীবান্ধব, মেধাবী এবং মানবিক নেতাদের নেতৃত্বে দেখতে চান তারা। আর আসন্ন জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে অতীতে আন্দোলন-সংগ্রামে রাজপথে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছে এমন সাহসী, অন্যায়ে প্রতিবাদী, বিচক্ষণ ও অভিজ্ঞ নেতৃত্বের বিকল্প নেই বলেও জানান তারা।

নেতারা যাতে সারাদেশের শিক্ষার্থীদের সমস্যা নিয়ে কথা বলেন, শুধু নিজেদের নয় দেশ ও জাতির কল্যাণে যাতে কাজ করেন, আঞ্চলিকতার উর্ধ্বে গিয়ে সবাইকে হাসিমুখে আপন ভেবে ধারণ করতে পারেন, এমন উদার ছাত্রনেতা চাওয়া কর্মীদের।

এসবের সঙ্গে কর্মীরা গুরুত্ব দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুর নীতি আদর্শ, জননেত্রী শেখ হাসিনা ও সংগঠনের ইমেজের প্রশ্নে আপোষহীন নেতৃত্বের প্রতি।

তাদের মতে, উপমহাদেশের বৃহত্তম ও ঐতিহ্যবাহী ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগে এমন নীতিবাদী, মেধাবী ও মানবিক নেতা রয়েছেন। যারা নিজ দক্ষতা আর নেতৃত্বগুণে তার পরিচয় দিয়েছেন, কর্মীদের ইতিবাচক রাজনীতিতে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছেন, সম্ভাবনাময় আগামীর স্বপ্ন দেখিয়েছেন। এমন পরীক্ষিত ছাত্রনেতাদের সুযোগ দেয়া উচিত হারানো গৌরব পুনরুদ্ধার করতে ও দেশ-জাতির প্রভূত কল্যাণে। সঠিক লোকটিকে বাছাই করতে হবে।

অতীত তিক্ত অভিজ্ঞতা থেকে প্রায় সবার চাওয়া আগামী কমিটিতে যেন কোন আনকোরা, অপ্রত্যাশিত মুখ দেখে কর্মীরা হতাশ না হয়, সেজন্য তৃণমূলের চাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে, তাদের চাহিদাকে মাথায় রেখে নেতৃত্ব বাছাই করতে হবে, বলছেন কর্মীরা।

সর্বজনবিদিত, গ্রহণযোগ্য ও প্রত্যাশিত অভিজ্ঞ নেতৃত্ব পেলে উজ্জীবিত ছাত্রলীগ আগামী নির্বাচনে নৌকার বিজয় তরান্বিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে বিশ্বাস করেন সবাই। আর স্বভাবতই নেতৃত্ব নির্বাচনে কর্মীদের আস্থার কেন্দ্রবিন্দু দেশরত্ন শেখ হাসিনা, সবাই চান এবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নিজে খোঁজখবর নিয়ে, নেতৃত্ব নির্বাচনে আঞ্চলিকতাকে প্রাধান্য না দিয়ে যোগ্যতার নিরিখে সেরাদের সেরা দুইজনের হাতে তুলে দিক শিক্ষা শান্তি প্রগতির পতাকা।

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে