ব্লেইম গেইম নোংরা খেলায় মেতে উঠেছে ছাত্রলীগ

প্রকাশিত: ০৮-০৫-২০১৮, সময়: ০৯:৪০ |
Share This

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলন ও ঢাবি ছাত্রলীগের নেতা বানানো কেন্দ্র করে ব্লেইম গেইম নোংরা খেলায় মেতে ওঠেছে ছাত্রলীগ’। বিভিন্নভাবে ছাত্রলীগের ত্যাগী পরিশ্রমী নেতাদের শিবির-ছাত্রদল অভিযোগ তুলছে একটি কুচক্রীমহল। ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা মনে করছেন, এ চক্রটি জামাত-শিবির ও ছাত্রলীগে ঘাপটি মেরে থাকা ছাত্রদল। এরাই এসব অপ্রচারণা করছেন।
সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে আসন্ন সম্মেলন ঘিরে আলোচিত জনপ্রিয় নেতাদের ঠেকাতে ব্লেইম গেইম নোংরা খেলায় মেতে ওঠেছে এই কুচক্রী মহলটি।
অনুসন্ধানে দেখা গেছে, মনগড়া তথ্য ফেসবুকে ভাইরাল করে ছাত্রলীগের আলোচিত পদ প্রার্থীদের বিরুদ্ধে শিবির জামাআত ছাত্রদলের নেতা বানানো পায়তারা করছে বলে অভিযোগ ওঠেছে।
সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে এর প্রতিবাদ করে ঢাকা দক্ষিন ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সভাপতি বলেন,

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলনকে সামনে রেখে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতার নামে নোংরামির খেলায় মেতে উঠেছে পিতা মুজিবের প্রিয় প্রতিষ্ঠানের চিহ্নিত অনুপ্রবেশকারীরা ।

শুরু হয়েছে ভাইয়ের বিরুদ্ধে ভাইয়ের অপপ্রচার আর চরিত্র হননের নষ্ট প্রতিযোগিতা।

ফেসবুকে প্রতিনিয়ত পিতার ঐতিহ্যবাহী সংগঠনকে বিতর্কিত করে পিতার আত্মাকে ব্যথিত করা হচ্ছে ।

সাংবাদিক ভাইদের কাছে মামাদের অনুরোধ, বিভিন্ন প্রার্থীর বিরুদ্ধে তথ্য-উপাত্ত বিহীন অসত্য সংবাদ না ছাপাতে।

আমরা একবারের জন্য ভাবিনা, প্রিয় প্রতিষ্ঠান কলঙ্কিত হলে পিতা মুজিব আত্মা কতটা কষ্ট পায়!

আর সামাজিকভাবে আমরা আমাদের অতীত ঐতিহ্যকে হারিয়ে ফেলি, প্রতিনিয়ত মানুষকে ভুলিয়ে ফেলি আমাদের গর্বের সোনালি ইতিহাস।

নেতৃত্বের প্রতিযোগিতার নামে এমন নোংরামি বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে পিছিয়ে নিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

আমরা বিশ্বাস করি, ছাত্রলীগ পিছিয়ে গেলে পিছিয়ে যাবে বাংলাদেশ, মুছে যাবে বীর বাঙালী জাতির সংগ্রামের ইতিহাস।

আমরা যদি মাননীয় নেত্রীর প্রতি অবিচল আস্থা এবং বিশ্বাস রাখি, তাহলে নিজের ভাইয়ের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের মাধ্যমে সংগঠনকে কলঙ্কিত না করে মাননীয় নেত্রীর সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করি।

মাননীয় নেত্রী নিজেই বিভিন্ন বিশ্বস্ত মাধ্যমে সকল প্রার্থীর ব্যাপারে খোঁজখবর নিচ্ছেন।

তিনি নিশ্চয় যোগ্য নেতৃত্ব উপহার দিবেন, ইনশাআল্লাহ।

ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি জয়দের নন্দী বলেন,
ছাত্রলীগে ‘অনুপ্রবেশ’ যেমন শুধু অনুমান-নির্ভর নয়; তেমনি প্রকৃত ছাত্রলীগকে অনুপ্রবেশকারী বানানোর চক্রান্তও চলমান!

চাই প্রাণের ছাত্রলীগ; বঙ্গবন্ধুর ছাত্রলীগ, দেশরত্নের ছাত্রলীগ।
বর্তমান ছাত্রলীগের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগের শিক্ষা পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বলেন, “When a person is bound to prove the existence of any fact, it is said that the burden of proof lies on that person.”

—– (Evidence Act, 1872
Section 101 – Burden of proof)

অর্থাৎ, যখন কোন ব্যক্তি কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ উত্থাপন করে, সেই অভিযোগের সত্যতা সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণের সম্পূর্ণ দায় সেই অভিযোগকারীর উপরই বর্তায়, এটাই বার্ডেন অফ প্রুফ।

অপরাজনীতি, নোংরামো তো আর নতুন দেখছি না, চরম অযোগ্যদের প্রধান অস্ত্রই হচ্ছে চরম নোংরামো করে অন্যের চরিত্র হননের অপচেষ্টা করে টিকে থাকা!

জননেত্রী শেখ হাসিনার উপর পূর্ণ আস্থা আছে বলেই এসবে ভ্রুক্ষেপ করছিনা একদম, কারণ কুচক্রী মহলের এমন নষ্ট চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে আমাদের আস্থার শেষ ঠিকানা, প্রাণপ্রিয় নেত্রী বেশ ভালোভাবেই ওয়াকিবহাল।

শুভ রাত্রি

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগের শীর্ষ পদগুলোতে যোগ্যতা, মেধা ও জন্মসূত্রে আওয়ামী ঘরের শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে নেতা নির্বাচনের স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পরেই একটি কুচক্রী মহল ব্লেইম গেইম নোংরা খেলায় মেতে উঠেছে এই কুচক্রী মহল।

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে