ইফতারে পুষ্টিকর পানীয়

প্রকাশিত: ২৪-০৫-২০১৮, সময়: ০৫:৪২ |
Share This
চলছে মাহে রামজান। মুসলমানদের সবচেয়ে মহিমান্বিত দিনগুলোতে সারাদিন রোজা রেখে ইফতারের টেবিলে এক গ্লাস ঠাণ্ডা পানীয় যেন স্বর্গীয় অনুভূতি এনে দেয়। তাই ইফতারির টেবিলে রাখুন এমন কিছু পানীয়, যা সারা দিনের তেষ্টা মেটানোর পাশাপাশি, পুষ্টির জোগানও দেবে।
ব্লু লেগুন উইথ বেসাল সিড
উপকরণ :ব্লু কারিওকি সিরাপ ২ টেবিল চামচ, তোকমার বীজ ১/২ চা চামচ, সোডা পানি ১ কাপ, পুদিনা/মিন্ট ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, কমলার স্লাইস ৪/৫টি, বরফ টুকরো ১২/১৪টি।
প্রস্তুত প্রণালি : ব্লু কারিওকি সিরাপ সুপার শপগুলোতে পাওয়া যায়। প্রথমে ১/২ কাপ পানিতে তোকমার বীজগুলো ভেজাতে হবে। এবার একটি ড্রিঙ্কস শেকারে প্রথমে পুদিনা পাতা দিয়ে ভারী কিছু দিয়ে ক্রাশ করে নিন। এবার এতে বাকি উপকরণ যেমন ব্লু কারিওকি সিরাপ, ভেজানো তোকমার বীজ, পুদিনা, লেবুর রস, কমলার স্লাইস, বরফের টুকরো দিয়ে ঢাকনা লাগিয়ে ভালোভাবে শেইক করুন ১০/১২ বার। এরপর পছন্দমতো গ্লাসে পরিবেশন করুন।
কাঁচা পাকা আমের শরবতী
উপকরণ :কাঁচা পাকা আম ২টি, আখের চিনি ৩ টেবিল চামচ, বিট লবণ ১/৪ চা চামচ, পুদিনা পাতা ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১/৪ চা চামচ, বরফ ১০/১২ টুকরো।
প্রস্তুত প্রণালি :প্রথমে কাঁচা আমগুলো খুব হাল্কা আঁচে চুলায় বসিয়ে এপিঠ ওপিঠ করে বেশ সময় নিয়ে পুড়ে নিতে হবে। ঠিকমতো পোড়া হলে আমের ওপরের অংশ খুব সহজেই উঠে আসবে, আর আমের ভেতরের অংশ খুব নরম একটা পেস্টের মতো হবে। এবার পোড়া আমের ভেতরের নরম অংশটুকু একটা পাত্রে নিয় নিন। অন্যদিকে হাল্কা গরম পানিতে আখের চিনিগুলো গুলতে দিন, এবার একে সব উপকরণ মেশানোর পালা, প্রথমে পুদিনাগুলো ছেঁচে নিন। এবার এতে পোড়া আমের ক্বাথগুলো চটকে চটকে দিন, এরপর গুলে রাখা আখের চিনি, বিট লবণ এবং বরফগুলো একসাথে নিয়ে একটা ঘুটনি দিয়ে খুব ভালো করে ঘুটে নিলেই হয়ে গেল মজাদার কাঁচা পাকা আমের শরবতী।
কিউকাম্বার ড্রিঙ্কস
উপকরণ :শসা ১টা , পানি ১ কাপ, লেবুর রস ২ টেবিল চামচ, মধু ৪ টেবিল চামচ, বরফ কুচি ১০-১২টি, পুদিনা পাতা ২ টেবিল চামচ, শসার স্লাইস ৭/৮টি।
প্রস্তুত প্রণালি :শসা কেটে ছোট ছোট টুকরো করে নিন। এবার বাকি শসা গ্রেটার দিয়ে মিহি কুচি করে নিতে হবে বা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে ছেঁকে রসটুকু নিতে পারেন। একটা শেইকারে পানি, চিনি বা মধু এবং লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এবার তাতে গ্রেট করা শসা বা শসার রস দিয়ে মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করতে পারেন। এবার গ্লাসে শসা স্লাইস দিয়ে এবং পরে ঠাণ্ডা করা জুস, বরফকুচি ও পুদিনা পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা কিউকাম্বার ড্রিঙ্কস।
জিরা লাচ্ছি
উপকরণ :মিষ্টি দই ১/২ কাপ, আখের চিনি ৪ টেবিল চামচ, পুদিনা ২ টেবিল চামচ, জিরা গুঁড়া ১/৪ চা চামচ, তেঁতুলের রস ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, বরফ ১০-১২ টুকরো।
প্রস্তুত প্রণালি :প্রথমে মিষ্টি দই একটা মসলিনের ছাঁকনিতে মিষ্টি দই ছেঁকে পানিটা ঝরিয়ে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে সবগুলো উপকরণ যেমন পানি ঝরিয়ে রাখা দই, আখের চিনি, পুদিনা, জিরা গুঁড়া, তেঁতুলের রস, লেবুর রস এবং বরফের টুকরোগুলো নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে, পছন্দমতো গ্লাসে পরিবেশন করুন, ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পরিবেশন করুন।
ওয়াটার মেলন জুস
উপকরণ :তরমুজ ১/২ কাপ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, আইসিং সুগার ৩ টেবিল চামচ, বরফের টুকরো ১০-১২ টুকরো।
প্রস্তুত প্রণালি :প্রথমে ব্লেন্ডারে তরমুজ, লেবুর রস, আইসিং সুগার ও বরফের টুকরোগুলো দিয়ে খুব ভালো করে ১ মিনিটের মতো ব্লেন্ড করতে হবে। এবার পুরো মিশ্রণটিকে একটা মসলিনের ছাঁকনিতে ছেঁকে নিন, তাহলে স্বচ্ছ জুস টুকু পাবেন। এবার পছন্দের গ্লাসে তরমুজের টুকরো গেথে, পরিবেশন করুন ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা ওয়াটার মেলন জুস।
মিন্ট লাইম সোডা
উপকরণ :ফ্রেশ লাইম জুস ১ চা চামচ, ফ্রেশ মিন্ট ১ চা চামচ, সুগার সিরাপ ১ টেবিল চামচ, বরফ ১০-১২ টুকরো, পানি ১/২ কাপ।
প্রস্তুত প্রণালি :প্রথমে পুদিনা পাতাগুলোকে একটা হামিন দিস্তায় হালকা করে ছেঁচে নিন, এবার একটা শেইকারে ফ্রেশ লাইম জুস, ফ্রেশ মিন্ট, সুগার সিরাপ, বরফ এবং পানি নিয়ে খুব ভালো করে শেইক করে পছন্দের গ্লাসে ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পরিবেশন করুন।

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে