ব্যাংকক ও দিল্লি মিশনে বিএনপি

প্রকাশিত: ০৬-০৬-২০১৮, সময়: ০৭:২৩ |
Share This

একাদশ জাতীয় নির্বাচনের আগে হঠাৎই বিদেশ মিশন শুরু করেছে দীর্ঘ ১১ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপি। গত রবিবার সকাল ১১টা ৫ মিনিটে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ব্যাংককে যান। একই দিনে ব্যাংকক যান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। বিএনপি জোটের শরিক দল এনডিপির চেয়ারম্যান খন্দকার গোলাম মর্তুজাও ব্যাংককে। আজ যাচ্ছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। সেখান থেকে দুই নেতার লল্ডনে যাওয়ার কথা রয়েছে। লন্ডনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে দেখা করে পরিবর্তিত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার কথা রয়েছে তাদের। এরই মধ্যে দিল্লি সফরে গেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু। সেখানে তার কয়েকজন কূটনীতিকের সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে।

মির্জা ফখরুলের পরিবারের সদস্যরা জানান, ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বিএনপি মহাসচিব। সেখানে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ভিসুটের সঙ্গে অ্যাপয়েন্টমেন্টও করা হয়। সেখানে গতকাল তিনি হার্টের চিকিৎসা করেছেন। এরপর আইবিএস চিকিৎসা করাবেন। এ ছাড়া মির্জা ফখরুলের সহধর্মিণী রাহাত আরাও শারীরিক চেকআপ করাবেন। আগামী সপ্তাহেই তাদের দেশে ফেরার কথা। বিএনপি মহাসচিবের হৃদরোগ ছাড়াও রয়েছে ঘাড়ে ইন্টারনাল ক্যারোটিড আর্টারিতে জটিলতা। এদিকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর ব্যাংকক থেকে লন্ডন ও আমেরিকা যাওয়ার কথা রয়েছে। আগে যুক্তরাষ্ট্র তারপর যুক্তরাজ্য যেতে পারেন তিনি। তবে বিএনপির শীর্ষ নেতাদের ব্যাংকক সফর ঘিরে দলের ভিতরে-বাইরে নানা গুঞ্জন সৃষ্টি হয়েছে। কেউ কেউ বলছেন, দুই নেতা লন্ডনও যেতে পারেন। তবে লন্ডনে যাওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন বিএনপি মহাসচিব। দেশ ছাড়ার আগে সাংবাদিকদের জানান, তিনি ব্যাংকক যাচ্ছেন। চিকিৎসা শেষে সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই ফিরবেন। আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীও একই কথা বলে যান। ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেন, ব্যাংককে তিনি চোখের চিকিৎসা করাবেন। তবে জোটের শরিক দলের নেতা গোলাম মর্তুজা ব্যাংকক সফরে কেন গেছেন তা জানা যায়নি।

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে