ইনজুরি হলে আমার কী করার আছে : মুস্তাফিজ

প্রকাশিত: ১৩-০৬-২০১৮, সময়: ১৩:২৮ |
Share This

কাউন্টি খেলতে গিয়ে প্রায় দুই বছর আগে নিজের স্বরূপ হারিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। সেই ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই একাদশ আইপিএল খেলতে গিয়ে আবারও চোটে পড়েন তিনি। বাদ পড়লেন আফগানিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর থেকে। ঘরোয়া লিগ খেলতে গিয়ে বারবার চোটে পড়ায় কাটার মাস্টারের ওপর বিরক্ত বিসিবি। সমর্থকেরাও বিষয়টাকে ভালোভাবে নিচ্ছেন না। আর যাকে নিয়ে এত কাণ্ড; সেই মুস্তাফিজ দুষছেন ভাগ্যকে।

ঈদ উপলক্ষে ইতিমধ্যেই ছুটি হয়ে গেছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের। কিন্তু ছুটি হয়নি দ্য পায়ে ‘হেয়ারলাইন ফ্র্যাকচার’ এ আক্রান্ত ফিজের। চোট কাটিয়ে মাঠে ফেরার লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। মিরপুর একাডেমি মাঠে আজ বুধবার মুখোমুখি হলেন সাংবাদিকদের। যথারীতি ছুটে গেল অসংখ্য প্রশ্নবাণ। এমনিতেই মুখচোরা স্বভাবের মুস্তাফিজ আজ সম্ভবত খুব বেশিই বলে ফেললেন। বললেন, ‘খেলতে গেলে এমন ইনজুরি হবেই। এখন আমার কপালে এমন ছিল, কী আর করার আছে!’

ফিজ বললেন, ‘সব ক্রিকেটারের জন্যই এটি (চোট) সত্য। আমি চেষ্টা করি সবসময় ফিট থাকার। তার পরও ইনজুরি হলে তো কিছু করার নাই। এখন অনেক ভালো অবস্থা। প্রায় তিন সপ্তাহ হয়ে গেছে। এখন পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় আছি। প্রতিদিনের রুটিন মেনে চলার চেষ্টা করছি। ঈদের জন্যও কয়েকদিনের প্রোগ্রাম দেওয়া হয়েছে আমাকে। যে পরিকল্পনা দেওয়া হয়েছে, সেটি মেনে চলার চেষ্টা করছি। ঈদের পর আবার পরীক্ষা করে দেখবে।’

মুস্তাফিজের এবারের চোট নিয়ে বেশ বিরক্ত হয়েছে বিসিবি। সময়মতো চোটের কথা না জানানো এবং চোট যে এত গুরুতর সেটা বলতে নাকি দ্বিধা করেছেন মুস্তাফিজ। তাকে নিয়ে বৈঠকে বসার কথাও বলেছিলেন বিসিবির একজন কর্মকর্তা। সেটা যাই হোক, মুস্তাফিজকে আরও বেশ কিছুদিন মাঠের বাইরেই থাকতে হচ্ছে। ঈদে বাড়ি গেলে ভালো লাগবে মুস্তাফিজের, তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে সুযোগ পেলে আরও ভালো লাগত বলে জানালেন তিনি।

Comments

comments

Leave a comment

উপরে