২৩২ রান করে ২১ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন আমিলিয়া

প্রকাশিত: ১৪-০৬-২০১৮, সময়: ০৬:০০ |
Share This

মেয়েদের ক্রিকেটে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন নিউজিল্যান্ডের ১৭ বছর বয়সী ক্রিকেটার আমিলিয়া কার। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচে ২৩২ রানের ইনিংস খেলেছেন নিউজিল্যান্ডের এ ওপেনারা।

সর্বকনিষ্ঠ মেয়ে ক্রিকেটার হিসেবে এটি তার প্রথম সেঞ্চুরি। ২০ ম্যাচের ক্যারিয়ারে ১০ ম্যাচে ব্যাট করার সুযোগই হয়নি ওয়েলিংটনে জন্ম নেয়া এ ক্রিকেটারের।

ক্রিকেট পরিবারেই আমিলিয়ার জন্ম। দাদা ব্রুস মুরে ছিলেন নিউজিল্যান্ড জাতীয় দলের ওপেনার। ১৯৬৮ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত খেলেছেন নিউজিল্যান্ড দলে। এমিলিয়ার বাবা রব্বি কেয়ারও ছিলেন ক্রিকেট প্লেয়ার। জাতীয় দলে তার ঠাঁই না হলেও ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছেন।

ছেলেদের ক্রিকেটের এক যুগেরও বেশি আগে ১৯৯৭ সালে ডেনমার্কের বিপক্ষে (২২৯ রানের ইনিংস) ওয়ানডে ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার বেলিন্ডা ক্লার্ক।সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ছেলেদের ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি নিয়মিত ঘটনা হলেও মেয়েদের ক্রিকেটে তা ছিল সোনার হরিণ। আর সেই সোনার হরিণ ছুঁয়ে দেখলেন আমিলিয়া।

আয়ারল্যান্ড সফরে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে টস জিতে আগে ব্যাট করে নিউজিল্যান্ড। উদ্বোধনীতে এমি স্যাটথওয়েটের সঙ্গে ১১৩ রানের জুটি গড়েন আমিলিয়া। ৪৫ বলে ৬১ রান করে এমি আউট হলেও উইকেটে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে যান নিউজিল্যান্ডের এ অলরাউন্ডার।

তিনে ব্যাটিংয়ে নামা লেই কাশপেরেকের সঙ্গে ২৯৫ রানের জুটি গড়েন আমিলিয়া। ১০৫ বলে ১০ চারের সাহায্যে ১১৩ রান করে কাশপেরেক আউট হয়ে ফিরে গেলেও উইকেটে অবিচল ছিলেন আমিলিয়া।

ইনিংসের শেষ বল পর্যন্ত খেলে ১৪৫ বলে ৩১ চার ও দুই ছক্কায় ২৩২ রান করেন তিনি। তার ডাবল সেঞ্চুরিতে ভর করে ৩ উইকেট ৪৪০ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড।

সিরিজের টানা তিন ম্যাচে চারশ রানের বেশি করে ইতিহাস গড়েন নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা। প্রথম ম্যাচে ৪৯০, দ্বিতীয় ম্যাচে ৪১৮ আর বৃহস্পতিবার শেষ ম্যাচে করে ৪৪০ রান।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে সেই আমিলিয়ার গুগলিতে বিভ্রান্ত হয়ে ৪৪ ওভারে ১৩৫ রান তুলতেই অলআউট হয়ে যায় স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ব্যাট হাতে ডাবল সেঞ্চুরি করা আমিলিয়া বল হাতে ৭ ওভারে মাত্র ১৭ রান খরচায় নেন ৫ উইকেটে। ম্যাচটি নিউজিল্যান্ডে মেয়েরা ৩০৫ রানে জিতে নেয়।

Comments

comments

Leave a comment

উপরে