‘ইচ্ছাকৃত হত্যা’ চালকের স্বীকারোক্তি

প্রকাশিত: ০৮-০৮-২০১৮, সময়: ১১:৩৯ |
Share This

জাবালে নূর পরিবহনের চালক মাসুম বিল্লাহ আজ বুধবার আদালতে স্বীকার করেন, গত ২৯শে জুলাই তিনি শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থীদের ইচ্ছাকৃতভাবে বাসচাপা দিয়েছিলেন। এই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিলে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন ঢাকা মহানগরের হাকিম গোলাম নবীর আদালত। আদালতে মাসুম বিল্লাহ বলেন, ‘বেশি ভাড়া পাওয়ার আশায় আগে যাত্রী উঠানোর জন্য তিনটি বাসের সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছিলাম। ছাত্ররা রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকায় ইচ্ছাকৃতভাবে তাদের ওপর বাস উঠিয়ে দেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘জাবারে নূর বাসের (যার রেজি. নং ঢাকা মেট্রো-ব-১১-৯২৯৭) চালক আমি। গত ২৯শে জুলাই জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের নিচে দাঁড়িয়ে থাকা শহীদ রমিজ উদ্দিন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ১৪-১৫ জন শিক্ষার্থীদের ওপর ইচ্ছাকৃতভাবে গাড়ি উঠিয়ে দিয়ে তাদের গুরুতর জখম করি। তারপর গাড়ি থেকে নেমে পালিয়ে যাই।

আমার গাড়ির আঘাতেই রমিজ উদ্দিন কলেজের দুজন মিম ও রাজিব নিহত হয়। আহত হয় ৮-১০ জনের মতো।’

ফৌজদারি কার্যবিধি ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করার এবং মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করা হয়। এর আগে গত ১লা আগস্ট ঢাকা মহানগর হাকিম এই মামলায় মাসুম বিল্লাহকে সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন।

বর্তমানে জাবালে নূর বাসের মালিক শাহাদাত হোসেন রিমান্ডে আছেন। তাছাড়াও এ পরিবহনের অপর দুই বাস চালক সোহাগ আলী ও জুবায়ের এবং হেলপার এনায়েত হোসেন ও রিপন রিমান্ডে আছেন। মামলাটি তদন্ত করছেন গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক কাজী শরিফুল ইসলাম।

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে