বুয়েটের ১৯ শিক্ষকের পেনশন নিয়ে হাইকোর্টের রায় আপিলে বহাল

প্রকাশিত: ০৮-০৮-২০১৮, সময়: ১২:৩১ |
Share This

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সাবেক তিন উপাচার্যসহ অবসরপ্রাপ্ত ১৯ শিক্ষককে জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী অবসরকালীন ছুটি (পিআরএল) ও পেনশন সুবিধা দিতে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ বুধবার এই আদেশ দেন। আদেশে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও বুয়েট উপাচার্যসহ সংশ্নিষ্টদের করা পৃথক ছয়টি লিভ টু আপিল খারিজ করা হয়েছে।

আদালতে অবসরপ্রাপ্ত ১৯ শিক্ষকের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ড. কামাল হোসেন। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী তবারক হোসেইন ও উর্মি রহমান। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও বুয়েট উপাচার্সসহ সংশ্নিষ্টদের করা লিভ টু আপিলের পক্ষে ছিলেন সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এএফ হাসান আরিফ।

অবসরের পর পিআরএল ও পেনশন সুবিধা থেকে বঞ্চিত বুয়েটের ১৯ শিক্ষক গত বছর হাইকোর্টে পৃথক তিনটি রিট দায়ের করেন। পরে তিনটি রিটের ওপর চূড়ান্ত শুনানি শেষে গত ৪ ফেব্রুয়ারি রায় দেন হাইকোর্ট। রায়ে ৩০ দিনের মধ্যে শিক্ষকদের প্রাপ্য পিআরএল ও পেনশন সুবিধা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়। এরপর ওই রায়ের বিরুদ্ধে পৃথক ছয়টি লিভ টু আপিল আবেদন করে বুয়েট ও বিশ্ববদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন। বুধবার ওই আবেদনগুলো খারিজ করেন আপিল বিভাগ।

আদেশের পর আইনজীবী তবারক হোসেইন সাংবাদিকদের বলেন, আপিল বিভাগের আদেশ অনুসারে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের প্রাপ্য পিআরএল ও পেনশন সুবিধা দিতে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বহাল রয়েছে। তবে রায় অনুসারে পেনশন সুবিধা পাবেন সাবেক দুই উপাচার্যসহ চারজন শিক্ষক। তারা হলেন- রিটকারী উপাচার্য ড. মো. মনোয়ারুল ইসলাম ও প্রফেসর সাহেদা রহমান এবং ড. মো. মোহর আলী ও ড. মোস্তফা কামাল চৌধুরী।

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে