অস্কারে যাচ্ছে বাংলাদেশের ‘ডুব’

প্রকাশিত: ২৩-০৯-২০১৮, সময়: ১২:২৯ |
খবর > বিনোদন
Share This

বাংলাদেশ থেকে অস্কারে যাচ্ছে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ছবি ‘ডুব’। বাংলাদেশ ফেডারেশন অব ফিল্ম সোসাইটিজ আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে রোববার খবরটি নিশ্চিত করেছে। ‘বিদেশি ভাষার ছবি’ হিসেবে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে ‘ডুব’। পরিচালনা করেছেন মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। এর আগে ফারুকী পরিচালিত ও তিশা অভিনীত দুটি ছবি অস্কারের এই বিভাগের জন্য বাংলাদেশ থেকে পাঠানো হয়। কিন্তু চূড়ান্ত লড়াই পর্যন্ত টিকতে পারেনি দুটি ছবি। এবারের ছবিটি নিয়ে ভীষণ আশাবাদী জুরি বোর্ডে থাকা বিচারকেরা।

মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার’ ছবিটি প্রথম অস্কারে বাংলাদেশ থেকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করে বাংলাদেশ ফেডারেশন অব ফিল্ম সোসাইটিজ। এরপর একই পরিচালকের ‘টেলিভিশন’ ছবিটিও পাঠানো হয়। দুটি ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রের অভিনয় করেন তিশা। ‘ডুব’ ছবিটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। সে হিসেবে ‘ডুব’ ফারুকী ও তিশার ৩ নম্বর ছবি হলেও অন্যদিকে দেশের আলোচিত প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার কোনো ছবি এবারই প্রথম বাংলাদেশ থেকে অস্কারে পাঠানোর জন্য বিবেচিত হয়েছে। তাই তো ফারুকী ও তিশার পাশাপাশি ভীষণ উচ্ছ্বসিত প্রযোজক আবদুল আজিজ।

শুটিং শুরুর সময় থেকে ‘ডুব’ ছবিটি নিয়ে ছিল ব্যাপক আলোচনা ও সমালোচনা। সবকিছুকে পাশ কাটিয়ে ছবিটি মুক্তি পায়। বিশ্বের বড় বড় কয়েকটি উৎসবে প্রশংসিত হয়। তিশা বলেন, ‘অবশ্যই খুবই আনন্দ লাগছে। এটা আমার তৃতীয় সিনেমা, অস্কারে ‘বিদেশি ভাষার ছবি’ বিভাগে লড়তে যাচ্ছে। চলচ্চিত্রে এমন ঘটনা প্রতিবছরই আমাদের মধ্যে আশা জাগাচ্ছে, স্বপ্ন দেখাচ্ছে। বেশ কয়েক বছর ধরে প্রতিবছরই অস্কারের জন্য ভালো ভালো সিনেমা যায়, অনেক বড় একটা অর্জন। ‘ডুব’ নিয়ে বলব, এই ছবি নিয়ে অনেক কিছুই হলো।

অনেক অর্জন, অনেক বিসর্জন—কিন্তু সবশেষে ছবিটি সবাই পছন্দ করেছেন, প্রশংসা করেছেন, বিভিন্ন দেশের বড় বড় উৎসব ঘুরে এসেছে। এখন অস্কারের জন্য যাচ্ছে, জানি না ভবিষ্যতে কী হবে। আমি ভবিষ্যতের কথা ভাবিও না। এই মুহূর্তটা আমি খুব উপভোগ করছি। আমার খুব ভালো লাগছে।’

পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী জানান, অস্কারের জন্য পাঠিয়ে বসে থাকলে চলবে না। অনেক ক্যাম্পেইনের দরকার পড়ে। পরিকল্পনামতো সেদিকটার কথাও ভাবছেন তিনি। বললেন, ‘যেকোনো চলচ্চিত্র পরিচালকের জন্য এটা আনন্দের, যখন তাঁর সিনেমা দিয়ে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করে। ‘ডুব’ আমার তৃতীয় ছবি, যা বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য লড়তে যাচ্ছে। আমরা জানি, অস্কারে প্রতিযোগিতা তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হয়, সেখানে অনেক ধরনের ক্যাম্পেইনের ব্যাপার থাকে। প্রত্যেক দেশ কিন্তু তাদের সেরা ছবি পাঠায়। যতদূর জানি, কমপক্ষে ৩০-৪০টা ছবি থাকে, যেগুলো অস্কারে যাওয়ার আগে নানা রিভিউ অর্জন করে। আমাদের ‘ডুব’ও রিভিউ অর্জন করেছে। শুধু এটা দিয়ে হবে না, আমাদের ক্যাম্পেইনে জোর দিতে হবে। প্রযোজকের সঙ্গে বসে তা ঠিক করতে হবে।’

পাঁচ বছর আগে ‘ভালোবাসার রং’ সিনেমা দিয়ে চলচ্চিত্র প্রযোজনায় নাম লেখান প্রযোজক আবদুল আজিজ। এবার তার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কোনো ছবি অস্কারে বিদেশি ভাষার ছবি বিভাগে লড়ার জন্য বাংলাদেশ থেকে মনোনীত হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ছবি ‘ডুব’ অস্কারে যাচ্ছে, এটা আনন্দের সংবাদ। পাশাপাশি শঙ্কাও কাজ করে। আমাকে অনেক প্রতিকূলতার মধ্যে ছবি বানাতে হয়। হোক তা জাতীয় কিংবা আন্তর্জাতিক, এমনকি যৌথ প্রযোজনার। এই ছবি সেন্সরে অনেক দিন আটকে ছিল। তারপর অনেক কষ্টে ছবিটি দর্শকের কাছে নিয়ে যেতে পেরেছি।’

রোববার দুপুরে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বাংলাদেশ থেকে এবার ‘ডুব’ ছবিটি পাঠানোর সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে বাংলাদেশ ফেডারেশন অব ফিল্ম সোসাইটিজ। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ছবির পরিচালক মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, অভিনয়শিল্পী তিশা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ। অন্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন হাবিবুর রহমান খান, গোলাম রাব্বানী বিপ্লব, আবু মুসা দেবু, মুশফিকুর রহমান গুলজার, পঙ্কজ পালিত, শামীমা আক্তার প্রমুখ।

আগামী বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসের হলিউডের ডলবি থিয়েটারে দেওয়া হবে ৯১তম একাডেমি অ্যাওয়ার্ডস। অস্কারের এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে দ্য একাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস।

সংবাদ সম্মেলনে ‘ডুব’ ছবির সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে অতিথিরা। ছবি: প্রথম আলোআগেই জানা গেছে, এবার বাংলাদেশ থেকে অস্কারে অংশ নেওয়ার জন্য দুটি ছবি জমা পড়ে—মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ‘ডুব’ আর নূর ইমরান মিঠু পরিচালিত ‘কমলা রকেট’। বাংলাদেশ থেকে অস্কারে ছবি পাঠানোর জন্য তৈরি কমিটির সদস্যরা গতকাল শনিবার ছবি দুটি দেখেছেন। কাকরাইলের আশীর্বাদ কথাচিত্রের কার্যালয়ে ছবি দুটি প্রদর্শন করা হয়। এবার এই কমিটিতে ছিলেন হাবিবুর রহমান খান, পঙ্কজ পালিত, শামীমা আক্তার, আবু মুসা দেবু, মুশফিকুর রহমান গুলজার ও ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।

‘ডুব’ ছবিতে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের রোকেয়া প্রাচী, তিশা, ভারতের ইরফান খান, পার্নো মিত্র প্রমুখ। গত ২৬ জুন ‘হলিউড রিপোর্টার’ এবং ২৮ জুলাই ‘ভ্যারাইটি’ প্রকাশ করে ‘ডুব’ ছবির রিভিউ। সেখানে লেখা হয়েছে, বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় লেখক ও চলচ্চিত্রকারের জীবন থেকে নির্মিত হয়েছে ‘ডুব’। ছবির চলচ্চিত্রকারের সম্পর্ক হয় কন্যার সহপাঠীর সঙ্গে। ‘ভ্যারাইটি’ লিখেছে, পারিবারিক সংকট চমৎকারভাবে পর্দায় ফুটিয়ে তুলেছেন শুধু দৃশ্যের কারিশমায়। ‘হলিউড রিপোর্টার’ লিখেছে, দীর্ঘদিনের সংসার ও মর্যাদাবান একজন স্ত্রী ও টিনএজ সন্তানদের রেখে সেই চলচ্চিত্রকার বিয়ে করেন কন্যার সহপাঠীকে। মানুষের অহংকার ও অভিমান একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের সবাইকে কীভাবে বেদনায় ডুবিয়ে দেয়, সেই গল্পই এ সিনেমায় দেখানো হয়েছে।

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে