ফেসবুকে মাশরাফিকে নিয়ে নানা আলোচনা

প্রকাশিত: ১৩-১১-২০১৮, সময়: ০৬:১৪ |
Share This

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের পর জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে নিয়ে ফেসবুকে শুরু হয়েছে ভক্ত–অনুরাগীদের নানা মন্তব্য আর আলোচনা। এর বেশির ভাগই তাঁকে শুভকামনা ও অভিনন্দন জানিয়ে পাঠানো বার্তা।

সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ (লোহাগড়া-নড়াইল সদরের একাংশ) আসনের জন্য গত রোববার মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন মাশরাফি। এ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন অন্তত দুই ডজন। গত ২৯ মে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে মাশরাফির নামও আলোচনায় আসে।

ফেসবুকে মাহামুদুল হাসান নামের একজন মন্তব্য করেছেন, ‘এত দিনে নড়াইলবাসী একজন সত্যিকারের সেবক পেতে যাচ্ছে। নড়াইল হবে প্রজন্মের শ্রেষ্ঠ বাসস্থান। দেশের স্বার্থে ও নড়াইলের উন্নয়নের স্বার্থে মাশরাফির মতো ভালো মানুষদের রাজনীতিতে আসা প্রয়োজন।’

মুনির আহমেদ লিখেছেন, ‘মাশরাফিকে দিয়ে নড়াইলের নির্বাচনী বিরোধ নিষ্পত্তি হলো। …নড়াইলবাসীর চাওয়া নড়াইলের উন্নয়ন। এ কাজ মাশরাফির থেকে ভালো করবেন, এমন নেতা নড়াইলে নেই।’

‘তাঁর মতো সৎ ও নির্লোভ ব্যক্তিরা রাজনীতিতে এলে রাজনীতির রং বদলে যাবে’, বলে মন্তব্য করেছেন মুকিত হোসেন। একই
ধরনের মন্তব্যে মিলন শেখ বলেছেন, ‘মাশরাফি ক্রিকেটের মতো বাংলাদেশের রাজনীতিতে ভালো সংস্কৃতি উপহার দেবেন।’ সনেট ফরহাদ নামের একজন লিখেছেন, ‘নড়াইল-২ সংসদীয় আসনটি আজ জাতীয়ভাবে আলোচিত। অবহেলিত জনপদের পাঞ্জেরী তোমাকে স্বাগতম, অভিবাদন।’

সিঙ্গাপুরপ্রবাসী লোহাগড়ার সজল সাহা লিখেছেন, ‘আমরা নড়াইলবাসী ভাগ্যবান যে মাশরাফির মতো লোক আমাদের জনপ্রতিনিধি হবেন।’

আর মোস্তাফিজুল হক মন্তব্য করেছেন, ‘আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জিতব এবং বিশ্বকাপ ক্রিকেটেও জিতব ইনশা আল্লাহ। মাশরাফির জন্য শুভ কামনা।’

তবে মাশরাফির নির্বাচনে নামার বিরোধিতা করেও কিছু মন্তব্য দেখা গেছে। প্রোফাইল ছবিতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ছবি দিয়ে সালাউদ্দিন হাসান মন্তব্য করেছেন, ‘মাশরাফির উচিত ছিল ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়ে রাজনীতিতে আসা।’

এ ধরনের মন্তব্যের কড়া জবাব দিয়ে অনেকের মতো হাসান মাহমুদ লিখেছেন, ‘মানলাম সে রাজনীতিতে গিয়ে ভক্তদের মনে আঘাত দিয়েছে। কিন্তু আর দশজন যখন ১০০ টাকার বাজেট পেয়ে ১০ টাকার উন্নয়ন দেখিয়ে বাকি ৯০ টাকা নিজের পকেটে ঢোকায়, তখন দেশের জন্য এ রকম কয়েকটা মানুষই খুব দরকার হয়ে পড়ে।’

শুধু নড়াইলবাসীই নন, ফেসবুকে মাশরাফিকে নিয়ে দেশের নানা অঞ্চলের মানুষও সরব। এমন একজন ফরিদপুরের আজমুল আজিজ লিখেছেন, ‘খুব ইচ্ছা করছে, ফরিদপুর-১ থেকে ভোটটা নড়াইল-২–এ স্থানান্তর করি। মাশরাফিকে ভোট দিতে পারবেন সৌভাগ্যবান নড়াইলবাসী।’

Comments

comments

Leave a comment

ফেসবুকে আমরা

লেখা পাঠান

আপনিও লিখতে পারেন। হতে পারেন আপনার জেলা কিংবা উপজেলার প্রতিনিধি।

সিভি পাঠান


news@digitalbangla24.com

সর্বশেষ সংবাদ

উপরে